ক্রোমের চেয়ে দ্রুত গতির হবে ফায়ারফক্স কোয়ান্টাম


মাত্র কয়েক বছর আগেও ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের কাছে সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্রাউজার ছিল মজিলা ফায়ারফক্স। ইন্টারনেট জায়ান্ট গুগল নিজস্ব ব্রাউজার গুগল ক্রোম ছাড়ার পর জনপ্রিয়তা হারায় ফায়ারফক্স।
এবার গুগল ক্রোমের সঙ্গে নতুন করে প্রতিযোগিতা শুরু করার জন্য বাজারে ছাড়া হল ফায়ারফক্স কোয়ান্টাম।
ফায়ারফক্স দাবি করছে, তাদের নতুন আপডেট ফায়ারফক্স কোয়ান্টাম দিয়ে জনপ্রিয় কিছু সাইটে গুগল ক্রোমের চেয়ে দ্রুত ব্রাউজ করা যায়। ওই সাইটগুলোর মধ্যে গুগলেরও কয়েকটি সাইট রয়েছে।
ফায়ারফক্স কোয়ান্টাম তার ব্রাউজারটির সর্বশেষ ভার্সনের চেয়ে দিগুণ গতিতে কাজ করে বলেও দাবি করছে এটির নির্মাতারা।

মজিলা জানিয়েছে, এর নতুন ব্রাউজার অন্যান্য ব্রাউজারগুলোর অর্ধেক মেমোরি ব্যবহার করে কাজ করে। এর ফলে মানুষ ইন্টারনেটে আরও দ্রুত কাজ করতে পারবে।
একটি ব্লগ পোস্টে প্রতিষ্ঠানটি দাবি করে, ফায়ারফক্সের নতুন আপডেটটি সম্পূর্ণ নতুন প্রযুক্তির সাহায্যে চলবে। ফায়ারফক্স কোয়ান্টাম দেখতেও একেবারে নতুন মনে হবে।
ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের সুবিধার্থে নতুন রুপে ফায়ারফক্স এমন সাজানো হয়েছে যেন ব্রাউজ করার সময় সেটি দিয়ে দ্রুত বিভিন কাজ করা যায়।
মজিলা দাবি করছে, ফায়ারফক্স কোয়ান্টাম দিয়ে গুগল ক্রোমের চাইতেও দ্রুত গুগল সার্চ ইঞ্জিন, গুগল লগ ইন পেজ, উইকিপিডিয়া, টাম্বলার ও শাটারশক এর সাইট ব্রাউজ করা যায়।

অন্যদিকে গুগল ডক, ইনস্টাগ্রাম, বিবিসি ও লাইফহ্যাকার-এর পেজ দেখার জন্য ফায়ারফক্স কোয়ান্টামের চাইতে গুগল ক্রোম ভালো কাজ করে বলে জানিয়েছে তারা।
মজিলা ফায়ারফক্সের নতুন ইন্টারফেসের নাম দিয়েছে ফোটন । ফোটন এমনভাবে নকশা করা হয়েছে যেন সেটি যেকোনো ফোন, ট্যাব, ল্যাপটপ, বা ডেস্কটপে স্বাতন্ত্র্য বজায় রেখে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীকে সাহায্য করতে পারে।
নতুন নকশা তৈরির জন্য মজিলার ডিজাইনাররা বাস্তবে মানুষ কিভাবে ইন্টারনেট ব্রাউজ করে তা নিয়ে গবেষণা করেছে। তাদের উদ্দেশ্য ছিল শুধু বর্তমানের বিভিন্ন ধরনের যন্ত্র নয়, ভবিষ্যতের প্রযুক্তির জন্য উপযুক্ত একটি ব্রাউজার তৈরি করা।
সূত্র: http://www.poriborton.com/poriborton-feature/87489

Leave a Reply