প্রাকৃতিক কৃষি বিপণন কেন্দ্র

দেশে বর্তমানে প্রাকৃতিক কৃষির জনপ্রিয়তা পেলেও রাসায়নিক সার ও কীটনাশক দিয়ে উত্পাদিত ফসলের কারণে প্রাকৃতিকভাবে উত্পাদিত ফসলের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছেন না বহু কৃষক-কৃষাণীরা। এমন অবস্থায় এসব চাষিদের ফসলের ন্যায্যমূল্য দিতে ‘প্রাকৃতিক কৃষি আন্দোলন’ ২০১৪ সালের ২৪ অক্টোবর থেকে ঢাকায় পরীক্ষামূলকভাবে ‘প্রাকৃতিক কৃষি ফসল বিপণন’ কার্যক্রম শুরু করে বলে জানান প্রাকৃতিক কৃষি আন্দোলনের সমন্বয়কারী ও প্রান্তজনীয় যোগাযোগ গবেষণা কেন্দ্রের (প্রাযোগ) পরিচালক দেলোয়ার জাহান। পরীক্ষামূলকভাবে শুরু হওয়া সে কাজ চলে ২০১৫ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত। চাষিদের পরিবেশবান্ধব উপায়ে উত্পাদিত ফসল প্রাথমিকভাবে বাড়ির আঙ্গিনায় বিপণনের কাজ শুরু হলেও পরে তা ব্যবসা আকারে পরিচালনার জন্য ঢাকার লালমাটিয়ায় একটি রুম নিয়ে বিপণনকেন্দ্র চালু করা হয়। স্থান পরিবর্তিত হয়ে বর্তমানে মোহাম্মদপুরের সলিমুল্লাহ রোডে বিপণন কেন্দ্রটি চালাচ্ছে তাদের কার্যক্রম। দেলোয়ার জাহান বলেন, একাডেমিক পাঠ শেষ করে এ কাজে আগ্রহী কিছু তরুণ সঙ্গীরা আবার ফিরলাম গ্রামে। কৃষক-কৃষাণীদের কাছ সেখান থেকে পেলাম প্রাকৃতিক কৃষির জ্ঞান। প্রাকৃতিক কৃষি ও কৃষকদের লড়াইয়ে যুক্ত হলো প্রাকৃতিক কৃষি বিপণন কেন্দ্র। মালিকানাহীন এই বিপণন কেন্দ্রে কাজ করছেন প্রাকৃতিক কৃষি আন্দোলনের কর্মীসহ অনেক স্বেচ্ছাসেবীরাও। এছাড়া বিষমুক্ত ফসলের এই হাটটির কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্য একটি গ্রামীণ বাজার অনুসরণ করা হয়েছিল। যার মাধ্যমে ফসল উত্পাদনকারী কৃষক থেকে শুরু করে, প্রাকৃতিক কৃষি আন্দোলন কর্মী এবং ভোক্তা পরিবারের মধ্যে নতুন সম্পর্কের ভিত্তিতে বিকল্প বিপণনব্যবস্থা গড়ে তোলার চেষ্টা করা হয়েছে।

প্রাকৃতিক কৃষি বিপণন কেন্দ্র,
৩/২৯, সলিমুল্লাহ রোড, মোহাম্মদপুর, ঢাকা।
মোবাইল : ০১৭৬০১৫৫৭৫৩ , ০১৭৬২৫১১৮০১
ই-মেইল : pkrishi2014@gmail.com
গুগল ম্যাপ

ফেসবুক পেজ

ফেসবুক গ্রুপ